সুশান্তের মৃত্যু মেনে নিতে পারছিলেন না ধোনি, কি প্রতিক্রিয়া ছিল মহানায়কের

ভারতের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহেন্দ্র সিং ধোনি আজ ৪০ বছরে পদার্পন করলেন। ১৯৮১ সালের ৭ই জুলাই রাঁচিতে তার জন্ম হয়। ২০০৪ সাল থেকে ভারতের হয়ে তিনি খেলা শুরু করেন। ২০১৯-এ ওডিআই ওয়ার্ল্ড কাপ শেষে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলতে থাকেন।

রিয়েল মাহি থাকলেও পৃথিবী ছেড়ে বিদায় নিয়েছেন রুপোলি পর্দার মাহি। ‘এমএস ধোনি- দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ ছবিটির সুবাদে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত হয়ে ওঠেন সিনেজগতের মহেন্দ্র সিং ধোনি। তার মতো করে ধোনির চরিত্রটি কেউ বড়পর্দায় বাস্তবায়িত করতে পারবেনা এমনটাই অভিমত সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের। বক্স অফিসে ছবিটি সুপার হিট হয় এবং সেই সঙ্গে রিল এবং রিয়েল দুই মাহির বন্ধুত্ব জমে ক্ষীর হয়ে যায়।

শুধু তাই নয় মাহির মেয়ে জিভার সঙ্গেও বেশ ভাব জমিয়েছিলেন সুশান্ত। দুজনের খুনসুটির বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় একসময় খুব ভাইরাল হয়েছিল। ধোনির বায়োপিক নির্মাণের সময় পরিচালক নীরাজ পান্ডে এই দুজনেরই যথেষ্ট ঘনিষ্ঠ হয়ে যান। তিনি সুশান্তের মৃত্যুতে আবেগঘন হয়ে ধোনির বর্তমান অবস্থার কথা জানিয়েছিলেন। জানা যায় সুশান্তের মৃত্যুর খবর শোনার মনোকষ্টে ছিলেন ধোনি।

অভিনেতার মৃত্যুতে শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েন ভারতীয় ক্রিকেটের ক্যাপ্টেন কুল, কিছুতেই তিনি সুশান্তের মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি। সেটাই তো স্বাভাবিক, বড় পর্দায় তার চরিত্রকে যিনি এতটা নিখুঁতভাবে তুলে ধরলেন এমনকি ধোনির বিখ্যাত হেলিকপ্টার শট টুকুও হুবহু কপি করার ক্ষমতা রাখেন যিনি, তাকে কি এতো সহজে ভোলা সম্ভব!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *