এবার তৃনমূলের হয়ে ত্রিপুরা যেতে চলেছেন দেব

বর্তমানে রাজনৈতিক দিক থেকে সব থেকে বেশী চর্চিত হওয়া জায়গাতির নাম হল ত্রিপুরা। ইতিমধ্যেই দেখা গেছে রাজনৈতিক দল তৃণমূল ত্রিপুরা তে যাওয়ার পর থেকেই দফায় দফায় সেখানকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়েছে। হামলা করা হয়েছে তৃনমূলের যুব নেতাদের ওপরেও। টা বলে থেমে থাকেনি তৃণমূল কংগ্রেস ও ।

বেশ কিছু মাস আগেই বাংলায় তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর সেই বিজয়ের পথে বিজেপি কে বিপুল সংখ্যক ভোটে হারিয়ে দিয়েছিল তৃণমূল। আর তারপর বঙ্গ জয়ের পর থেকেই ত্রিপুরাকে টার্গেট করেছে তৃণমূল। ত্রিপুরাই ক্ষমতা দখল করতে তারা বদ্ধপরিকর। আর সেই কারনেই তৃনমূলের একের পর এক নেতা প্রায়সই রওনা দিচ্ছেন ত্রিপুরার উদ্দেশ্যে। তবে মনে করা হচ্ছে ত্রিপুরা কে প্রথম টার্গেট করার উদ্দেশ্য বাংলার মতোই ত্রিপুরাতেও বাংলা ভাষী মানুষের সংখ্যা অনেক। আর সেই কারনেই ত্রিপুরাকেই করা হচ্ছে প্রথম টার্গেট।

তবে ত্রিপুরাই নিজেদের আধিপত্য কায়েম করার গুরু দায়িত্ব নিজের কাধেই নিয়ে নিয়েছেন অভিষেক বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়। যিনি তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারন সম্পাদক । সম্প্রতি গত সপ্তাহেই ত্রিপুরায় প্রচার বাড়াতে রওনা হয়েছিলেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। যিনি ভোটে হেরে গেলেও দলের তরফ থেকে যুব তৃণমূল সভাপতির মর্যাদা পেয়েছেন। ত্রিপুরায় গিয়ে বেশ কয়েকটি কর্মসূচী তেও দেখা গিয়েছিল তাকে। তবে শোনা যাচ্ছে এবার আরও বড়ো একটি চমক আসতে চলেছে।

বিশেষ সুত্র থেকে জানা যাচ্ছে, এবার ত্রিপুরায় দলের সংগঠন আরও মজবুত করতে সাংসদ অভিনেতা দেব সেখানে যাবেন। মূলত দেব তার অভিনয় এর মাধ্যমে ইতিমধ্যেই সুপার হিট হয়ে গেছেন। আর বাংলার পাশাপাশি ত্রিপুরাতেও তার অনুগামীর সংখ্যা নেহাত কম নয়। আর দলের পক্ষ থেকে এই এডভান্টেজ তাকেই কাজে লাগানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। ওই সুত্র মারফত জানা গেছে সেখানে তার কর্মসূচী ঠিক না হলেও তিনি ত্রিপুরাই যেতে রাজী হয়েছেন। এবং সব কিছু ঠিকঠাক ছল্লে হয়তো আগামী সপ্তাহেই ত্রিপুরার উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *