‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ প্রকল্পের এসএমএস আসেনি? কি কি করতে হবে জেনে নিন

তৃতীয় বার রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর নেতৃত্বাধীন সরকারের উদ্যোগে রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে দ্বিতীয় দফার ‘দুয়ারে সরকার’ শিবির।এই শিবির শুরু হয়েছে গত ১৬ ই আগস্ট থেকে।প্রথম দফার মতো এইবারেও এই শিবিরে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পে আবেদন করা যাচ্ছে।আগের বছরের মতো শিবিরে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড,বিধবা ভাতা,বার্ধক্য ভাতা,কৃষক বন্ধুর মতো প্রকল্প গুলির এবার নতুন যোগ হয়েছে ‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ প্রকল্প।নির্বাচনের প্রাক্কালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষনা করেছিলেন তিনি যদি আবার সরকার গঠন করার সুযোগ পান তাহলে রাজ্যের মহিলাদের জন্য একপ্রকার মাসিক ভাতার ব্যাবস্থা করে দেবেন।নিজের প্রতিশ্রুতি ভোটে জিতে ফিরে আসার পর রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্য সরকারের উদ্যোগে শুরু করেছেন ‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ নামে এই প্রকল্প।

এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন ২৫- ৬০ বছর বয়সী সমস্ত মহিলারাই।এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য স্বাভাবিক ভাবেই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হওয়া বাধ্যতামূলক। ‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ এ আবেদন করতে হলে তার স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকা বাধ্যতামূলক, এই কার্ড ছাড়া এই প্রকল্পে আবেদন করা যাবে না।প্রকল্প অনুযায়ী সাধারন শ্রেনীর মহিলাদের মাসিক ৫০০ টাকা ও তপশিলি জাতি ও উপজাতি শ্রেণির মহিলাদের মাসিক ১০০০ টাকা ভাতা দেওয়া হবে।

প্রয়োজনীয় সমস্ত নথি দিয়ে ফর্ম জমা দেওয়ার পর ও অনেকেরই ফোনে আসছে না কোনো প্রকার মেসেজ।যা নিয়ে অনেকেই ভাবছেন টাকা আদৌ তাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকবে কিনা।

আসুন দেখে নিই ঠিক কি কি কারনে ফর্ম জমা দেওয়ার পরও অনেকের কোনো এসএমএস আসছে না,
প্রথমত, ফর্ম ফিলাপের সময় স্বাস্থ্যসাথী কার্ড, আধার কার্ড কিংবা মোবাইল নম্বর যদি ভুলভাল দেন তাহলে এসএমএস আসবে না এমনটাই জানা গিয়েছে।
দ্বিতীয়ত, দুয়ারে সরকার শিবিরে প্রচুর ফর্ম জমা পড়েছে লক্ষ্মীর ভান্ডারের,সেই কারনেই এনরোলমেন্ট একটু বেশি সময়ও লাগতেই পারে।

যাদের এসএমএস আসেনি, তাদের অনেকেই ভাবছেন দুয়ারে সরকার শিবিরে গেলেই সমস্যার সমাধান হবে।কিন্তু তা নয়,কারন,শিবিরে শুধুমাত্র ফর্ম দেওয়া ও জমা নেওয়ার ই কাজ চলছে।এক্ষেত্রে বিডিও অফিস কিংবা স্থানীয় পৌরসভায় এই সমস্যা নিয়ে যাওয়া যেতেই অয়ারে,সেখানে সরকারী অফিসার রা হয়তো সমাধান ও করতে পারবে।এতে যদি কোনো কাজ না হয় তাহলে আপনি আপনার স্মার্টফোন টিতে দুয়ারে সরকার লিখে সার্চ করুন।এরপর যে পেজটি খুলবে তার নিচের দিকে একটু খেয়াল করলেই দেখতে পাবেন যে সেখানে লেখা রয়েছে contact with us। সেখানে দুটি নম্বরের উল্লেখ থাকবে, এই টোল ফ্রি নম্বর দুটি হল (১০৭০/০৩৩-২২১৪৩৫২৬)। এছাড়াও সেখানেএকটি ইমেইল আইডিও দেওয়া রয়েছে। উল্লিখিত মেইল আইডি টি হল দুয়ারেসরকার@gmail.com। এই মেইল আইডিতে মেইল করেও আপনারা সমস্যার কথা জানাতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *