মুসলিম তাই কাজ দেয় না বলিউড, কাজ পেতে চরম সিদ্ধান্ত নিলেন মনোজ বাজপেয়ীর স্ত্রী

একবিংশ শতাব্দীতে এসেও জাতি-ধর্ম-বর্ণের ভেদাভেদ আজও বড়ই প্রাসঙ্গিক ভারতীয় সমাজে। বিশেষত হিন্দু-মুসলিমের দ্বৈরথ, উভয় ধর্মের রেষারেষি যেন কখনোই শেষ হওয়ার নয়। বাইরে থেকে হয়তো বোঝা যায় না, তবে বলিউডও (Bollywood) কিন্তু সাম্প্রদায়িকতার ঊর্ধ্বে নয়। যদিও বলিউডে বরাবর খানেদের (শাহরুখ, আমির, সালমান) রাজত্ব চলেছে, তবুও নায়িকা মুসলিম ধর্মাবলম্বী হলেই প্রবল আপত্তি বলিউডের।

এই সাম্প্রদায়িকতার শিকার হতে হয়েছিল শাবানা রাজাকে (Shabana Reza)। না, এই নামে অবশ্য তাকে কেউই চেনেন না। বলিউড তাকে এই নামে পরিচিত হতে দেয়নি। বলিউড তাকে নতুন নাম দিয়েছে। তার নাম হয়েছে নেহা (Neha)। দর্শকও তাকে সেই নামেই চেনেন। ববি দেওল (Boby Deol), হৃত্বিক রোশনের (Hrithik Roshan) বিপরীতে একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন শাবানা। তবে নিজের নামে অবশ্যই নয়। তার আসল নাম বরাবর চাপা পড়ে গিয়েছে সাম্প্রদায়িকতার আড়ালে।

অথচ তিনি ভীষণ ভাবে সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী মনোভাবের একজন মানুষ। মুসলিম ধর্মাবলম্বী হয়েও তিনি বিয়ে করেছেন হিন্দু ঘরে। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়েও ভিন ধর্মে বিয়ে করার জন্য যথেষ্ট সাহসের প্রয়োজন হয়। সেই সাহস তার ছিল। শুধু নিজের নাম নিয়ে বলিউডে পরিচিতি গড়ে তোলার সাহস তিনি পাননি। কারণ যতবারই তিনি নিজের নামে পরিচিতি পেতে চেয়েছেন, বলিউড তাকে দুহাত ভরে শুধুই অপমান দিয়েছে!

১৯৭৫ সালে মহারাষ্ট্রের সোলাপুরে এক অভিজাত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন শাবানা রাজা। ১৯৯৮ সালে ববি দেওলের বিপরীতে ‘করীব’ ছবিতে নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করে বলিউডে ডেবিউ করেন শাবানা। তখন থেকেই তার নাম হয়েছিল নেহা। ক্রমশ তিনি দর্শকের অত্যন্ত পছন্দের অভিনেত্রী হয়ে উঠছিলেন। ২০০০ সালে হৃত্বিক রোশনের সঙ্গে ‘ফিজা’, ২০০১ সালে ‘রাহুল’ এবং ‘আত্মা’তেও নেহা নামেই অভিনয় করেছেন শাবানা।

এরপর ২০০৫ সালে জাতি-ধর্মের ঊর্ধ্বে উঠে মনোজ বাজপেয়ীকে (Manoj Bajpai) বিয়ে করেন শাবানা। ২০১০ সালে নিজের পরিচয়ে প্রথমবার কাজ করেছেন শাবানা। তবে বলিউড যখন তাকে তার নামেই চিনছিল, ঠিক সেই মুহুর্তেই তার মাতৃসত্তা তার কেরিয়ারের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। সন্তান এবং কেরিয়ারের মধ্যে তিনি সন্তানকেই বেছে নেন। সন্তানের প্রতিপালনের জন্যেই ২০১১ সালে অভিনয় জীবন থেকে সরে আসেন শাবানা।

তবে তার স্বামী মনোজ বাজপেয়ী কিন্তু বলিউডে সংগ্রাম চালিয়ে গিয়েছেন। বর্তমানে তিনি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের অত্যন্ত পরিচিত মুখ। ‘ফ্যামিলি ম্যান’ ওয়েব সিরিজের দৌলতে দর্শক তাকে বেশ ভালোমতোই চেনেন। বাস্তব জীবনেও পুরোদস্তুর ফ্যামিলি ম্যান মনোজ। স্ত্রী এবং কন্যাকে নিয়ে সুখের সংসার তার। সংসারের জন্য স্ত্রীর আত্মবলিদানকে তিনি বরাবর সম্মান করেছেন। তবে তিনি চান তার স্ত্রী সংসারের ঊর্ধ্বে উঠে আবার বলিউডে ফিরে নিজের আসল পরিচয় গড়ে তুলুন, ছদ্ম পরিচয় নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *