৩৫ হাজারের Gucci বেল্ট কিনলেন মেয়ে, দাম শুনে হতভম্ব মা যা করলেন….

বাড়িতে কার সঙ্গে এমন ঘটনা একবারও ঘটেনি বলুন তো? খুঁজতে বেরলে লাখে একজন মিলবে কোনওক্রমে । কারণ আমরা যাই জিনিস বাড়িতে কিনে আনি না কেন, তা দেখে বাবা-মায়েদের অদ্ভুত প্রতিক্রয়া দেওয়াটা যেন সহজাত অভ্যাসের মধ্যেই পড়ে । হয়তো বাবা বলবেন, ‘কেন এত খরচ করলি’, মা বলবেন, ‘এই জিনিস তো অনেক সস্তায় অমুক দোকানে পাওয়া যায় ।’ বাবা হয়তো বলবেন, ‘পয়সার অপচয় করছিস’, মা হয়তো বলবেন, ‘তোকে পুরোপপুরি ঠকিয়ে দিয়েছে ।’ ঠিক এমন ধরণের ঘটনা প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই কমবেশী ঘটতে থাকে । ছেলেমেয়েদের কেনা জিনিসের উপর অনেক মা-বাবাই ঠির ভরসা রাখতে পারেন না । অনেকে আবার তার মধ্যে খুংত গুলো খুঁজে বের করার চেষ্টা করেন বা একটা খুঁত ধরে সমালোচনা শুরু করে দেন । অনেকে আবার সন্তানদের সাবধান করেন পরবর্তীতে জিনিস কেনার সময় সতর্ক থাকতে । অবশ্য এই পুরোটাই তাঁরা করেন স্নেহ, মমতা আর দায়বদ্ধতা থেকে ।

ঠিক এমনই এক ঘটনা সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে ইনস্টাগ্রামে । সোশ্যাল মিডিয়ায় এক জনৈক বিহারি মায়ের কাণ্ড দেখে হাসতে হাসতে পেটে খিল ধরছে নেটিজেনদের । কারণ পৃথিবীর অন্যতম জনপ্রিয় ফ্যাশন ব্র্যান্ড Gucci-র একটি বেল্ট দেখে ওই মহিলা তাকে DPS (Delhi Public School)-এর বেল্টের সঙ্গে তুলনা করেছেন ।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ওই মহিলা বেল্টটি হাতে তুলে নিয়ে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দেখছেন । তাঁর মেয়ে ওই বেল্টটি সম্প্রতি কিনে এনেছেন । যদিও মেয়ের মুখ দেখা যায়নি ভিডিওতে । তবে তাঁর গলার স্বর শোনা গিয়েছে । ওই মহিলা মেয়েকে জিজ্ঞাসা করলেন, বেল্টটির দাম কত । মেয়ে যখন মা’কে জানালেন যে, তিনি ৩৫ হাজার টাকা ব্যয় করে বেল্টটি কিনেছেন, তখন মায়ের মাথায় হাত । তিনি বললেন, ডিপিএস স্কুলের বেল্টের মতো দেখতে এই বেল্টে কী এমন আহামরি জিনিস রয়েছে যে তার এত দাম । এটা বাজারে ১৫০ টাকায় কিনতে পাওয়া যায় । মেয়ে যে লাগামছাড়া খরচ করেন, তা নিয়েও অভিযোগ তুলেছেন তিনি । তবে মেয়ের এই কাণ্ডকারখানা দেখে নিজেও হাসি সামলাতে পারেননি ওই মা । ভিডিওটি ছবি গুপ্ত নামের এক তরুণী নিজের ইনস্টা হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন । তাই ইনস্টা অ্যাকাউন্টে মা অনিতা গুপ্তের এমনই আরও নানারকম মজার কাণ্ডকারখানার ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেন তিনি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *