Mouni Roy: দুধ সাদা পোশাকে উন্মুক্ত নাভি, খোলামেলা শরীরে ঝড় তুললেন ‘Super Hot’ মৌনী

বলিউড অভিনেত্রী মৌনী রায় (Mouni Roy), টেলিভিশন দিয়ে অভিনয় জীবন শুরু করলেও বর্তমানে বলিউডের হট সেনসেশন অভিনেত্রী। নায়িকার মারকাটারি ফিগারের ধারে তিনি ঘায়েল করেছেন নিজের অনুরাগীদের। সাস ভি কাভি বহু থি সিরিয়াল দিয়ে প্রথম পর্দায় প্রবেশ করেন এই বঙ্গ তনয়া। আর এই মুহূর্তে তিনি কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন বড় পর্দা থেকে ছোট পর্দার সকল জায়গাতেই।

জন্মসূত্রে বাংলার কোচবিহারের বাসিন্দা বঙ্গ তনয়া মৌনি রায়, ১৯৮৫ সালে ২৪ শে সেপ্টেম্বর কোচবিহারে জন্মগ্রহণ করেন মৌনি। তার পরিবারের বহু মানুষই যুক্ত ছিল অভিনয়ের সাথে। মৌনির পিতামহ, শেখর চন্দ্র রায় একজন সুপরিচিত জাতীয় থিয়েটার শিল্পী ছিলেন। মাও ছিলেন একজন থিয়েটার আর্টিস্ট। কোচবিহারের বাবুরহাটে কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করার পর, পরবর্তী পড়াশোনার জন্য দিল্লি চলে যান অভিনেত্রী। এরপর জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়াতে গণ যোগাযোগ নিয়ে ভর্তি হলেও মাঝপথে ছেড়ে দেন পড়া।

এই জায়গায় পৌঁছাতে জীবনে বহু স্ট্রাগেল করেছেন মৌনি। ২০০৭ সালে কিউকি সাস ভি কাভি বহু থি সিরিয়াল দিয়ে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন মৌনি। তারপর একে একে বেশ ক’টি সিরিয়াল কাজ করেছেন তিনি যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য, নাগিন, দেবাদিদেব মহাদেব, প্রমুখ এছাড়াও জনপ্রিয় ডান্স রিয়েলিটি শো ঝলক দিখলাজা তেও দেখা গিয়েছিলো মৌনিকে, তবে বর্তমানে ছোট পর্দাকে পেছনে ফেলে বড় পর্দার দিকে পাড়ি দিয়েছেন মৌনি, প্রথম ছবি গোল্ড এ অক্ষয় কুমারের বিপরীতে অভিনয় করেন মৌনি, এরপর কেজিএফ এবং মেড ইন চায়নাতে অভিনয় করে বি টাউনে নিজের পাকাপাকি জায়গা গড়ে নিয়েছেন এই বঙ্গ তনয়া।

মৌনি অভিনয়ের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ একটিভ থাকেন, অভিনেত্রীর মারকাটারি ফিগার রাতের ঘুম কেড়ে নিতে পারে অনুরাগীদের, বোল্ড লুকের অবতারে অন্তর্জালে উষ্ণতার পারদ চড়ান মৌনি, সম্প্রতি দুধ সাদা রঙের একটি পোশাকে ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী।

স্লিভলেস টপ এবং উন্মুক্ত নাভিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারো বোল্ড অবতারে ধরা দিয়েছেন অভিনেত্রী। ছবিটি পোস্ট করার মুহুর্তের মধ্যেই সেটি ঝড়ের গতিতে হয়েছে ভাইরাল। লক্ষ লক্ষ লাইক কমেন্টে ভড়ে গিয়েছে ছবিটি। বরাবরের মতন মৌনির এই ছবিটিও অন্তর্জালে আগুন লাগিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *