খাস কলকাতায় জমজমাট ‘Porn’ ছবির পর্দা ফাঁস, রইল লাস্যময়ী ন্যান্সি ভাবির আসল পরিচয়

কিছুদিন আগেই পর্নোগ্রাফি কাণ্ডে গ্রেপ্তার হয়েছে অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা (Raj Kundra)। পর্নকাণ্ডে শিল্পার স্বামীর রাজকে ১৪ দিনের জেল হেফাজত দিয়েছে আদালত। যখন পর্নোগ্রাফি কাণ্ড নিয়ে তোলপাড় বলিউড সেই সময় খোদ কলকাতার বুকে ধরা পড়লো পর্নোগ্রাফি চক্র (ponography racket)। শুধু তাই নয় হাতেনাতে গ্রেফতারও করা হয়েছে কলকাতার এই নীল ছবি চক্রের মাস্টারমাইন্ডকে। তার নাম নন্দিতা দত্ত (Nandita Dutta)। দীর্ঘদিন ধরে এই লাস্যময়ী রমরমিয়ে কলকাতার বুকে চালিয়ে যাচ্ছিল এই নীল ছবির ব্যবসা। তবে সকলের জন্য নন্দিতা ন্যান্সি ভাবি (Nancy Bhabhi) নামেই পরিচিত।

নন্দিত দত্ত ওরফে ন্যান্সি ভাবি খাস কলকাতার বুকে রমরমিয়ে চালাচ্ছিলেন পর্নোগ্রাফির ব্যবসা। ফেসবুকে কাজের টোপ দেখিয়ে নতুন মডেল দের এই পেশায় নিয়ে আসতেন নন্দিতা।প্রথমে সাধারণ শুটিং কিংবা অর্ধনগ্ন শুটিং হতো এবং তারপরই মোটা টাকার লোভ দেখিয়ে করা হতো পর্নোগ্রাফি এবং এর সাথে জড়িয়ে রয়েছে প্রচুর মেয়ে। পুলিশি তদন্তে উঠে এসেছে এমনই সব তথ্য।

তবে কে এই ন্যান্সি ভাবি? সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী ও মডেল হিসেবেই পরিচিত নন্দিতা।ফ্যান ফলোয়ারের সংখ্যাও চোখে পড়ার মতো। নিজের শরীরী উষ্ণতায় তিনি কাবু করে রাখেন সেইসব ফ্যানদের। পুরুষদের কাছে তিনি তন্দ্রাহরণী।ন্যান্সি ভাবি নামের ফেসবুক একাউন্টটি খুলে দেখলে মাথায় চোখ উঠেবে, যেখানে তার ফলোয়ার সংখ্যা ২১ হাজারের বেশি।

আর সেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ভক্ত সংখ্যা ধরে রাখতে হামেশাই শরীরী উত্তেজনামূলক ছবি, ভিডিও পোস্ট করতেন নন্দিতা ওরফে ন্যান্সি ভাবি। অশ্লীল ও নোংরা ভঙ্গিমার ছবিতে ভর্তি তার সোশ্যাল অ্যাকাউন্ট। আর তার সেইসব ছবিগুলিতে লাইক কমেন্টের সংখ্যা দেখলে রীতিমতন অবাক হবেন।

দীর্ঘদিন ধরেই এই দেহব্যবসার সঙ্গে জড়িত ন্যান্সি ভাবি। বিভিন্ন পর্ন সিরিজে অভিনয় করেছেন তিনি। গুগলে সার্চ করলে খুলে যাবে তার সেই সমস্ত অ্যাডাল্ট সিরিজ। সম্প্রতি নন্দিতা ওরফে ন্যান্সি ভাবি একটি তেলেগু ম্যাগাজিনের হয়েও মডেলিং করেছেন। তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে তেমনটাই হদিশ মিলছে।কলকাতার নীলছবির ব্যবসার মালকিন নন্দিতা দত্ত ওরফে ন্যান্সি ভাবিকে বুধবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার সাথে তার সঙ্গী মৈনাক ঘোষকেও (Mainak Ghosh) আটক করা হয়েছে।

ঘটনায় অভিযুক্ত অন্যান্যদেরও হদিশ চলছে।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নন্দিতাই মূলত এই চক্রটি চালাতেন। এবং চিত্রগ্রাহক হলেন মৈনাক ঘোষ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে এই পর্ন ছবির শুটিং চলত।এই পর্নগুলি নিওফ্লিক্স ও রেডওয়াইপ টু-তে দেখানো হতো। কলকাতার অপরাধ জগতের সঙ্গেও ন্যান্সি ভাবির যোগাযোগ আছে কিনা সেদিকেও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *