রাজই আমাদের পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে এনেছিল, বিস্ফোরক অভিযোগ পুনম পান্ডের ও শার্লিন চোপড়ার

রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে বিয়ে হয় শিল্পা শেট্টির ২০০৯ সালে। ২০১২ সালে তাঁদের সন্তান ভিয়ানের জন্ম হয়। গত বছর রাজ ও শিল্পার ঘরে আসে কন্যা সামিশা। এর আগে আইপিএলে ম্যাচ গড়াপেটা কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়েছিল রাজ কুন্দ্রার। তখন তিনি রাজস্থান রয়্যালসের মালিক ছিলেন। ২০১৩ সালের আইপিএলে স্পট ফিক্সিং কাণ্ড ঘটেছিল। সেই ঘটনার প্রেক্ষিতে দু’বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালসকে। দু’বছরের নির্বাসন কাটিয়ে রাজস্থান রয়্যালস আবার আইপিএলের মূল স্রোতে ফেরে।

তবে রাজ কুন্দ্রা বহু দিন ধরেই নাকি পর্ন ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। শিল্পা শেট্টির স্বামীর হাত ধরেই এই জগতে এসেছিলেন পুনম পাণ্ডে, শার্লিন চোপড়া । সূত্রের খবর, মহারাষ্ট্রের সাইবার সেলকে বহু আগেই এই তথ্য দিয়েছিলেন দুই অভিনেত্রী। অ্যাডাল্ট ভিডিওর জগতে বেশ পরিচিত নাম শার্লিন চোপড়া ও পুনম পাণ্ডে। প্রায় দিনই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেন তাঁরা। শোনা যায়, বহু আগে রাজের প্রজেক্টে কাজ করেছিলেন দুই অভিনেত্রী।

সূত্রের খবর, সেই সময়ও এক একেকটি প্রজেক্টের জন্য রাজের কাছ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা পেতেন শার্লিন চোপড়া। এমন ১৫ থেকে ২০টি প্রজেক্টে কাজ করেছিলেন তিনি। শুধু রাজ কুন্দ্রা নন, আরও কয়েকজন এই পর্ন কনটেন্ট তৈরির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তবে ‘মাস্টারমাইন্ড’ বা মূল ষড়যন্ত্রকারী শিল্পা শেট্টির স্বামী ।

মুম্বই পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসেই কুন্দ্রার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছিল। সোমবার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তারপরই রাতের দিকে গ্রেপ্তার করা হয়। কুন্দ্রা যে এই কাজে জড়িত সেই ব্যাপারে যথেষ্ট প্রমাণ ছিল। সেই কারণেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি মুম্বই পুলিশের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *