স্মার্টফোনে স্ক্রিন রেকর্ডিংয়ের ফাইল সাইজ ছোট করবেন কীভাবে?

আজকাল সব ফোনেই থাকে স্ক্রিন রেকর্ডিং ফিচার। এর ফলে ফোনের স্ক্রিনে কী কী হচ্ছে সব ভিডিও হিসাবে সেভ করে রাখা সম্ভব। চাইলে স্ক্রিনশট নিয়েও ফোনের স্ক্রিন ছবি হিসাবে সেভ করা সম্ভব। পরে এই ছবি ও ভিডিও গ্যালারি থেকে দেখে নেওয়া যাবে। যদিও স্ক্রিন রেকর্ডের সময় ভিডিও দৈর্ঘ্য এক মিনিটের বেশি হলেই অনেক বেশি স্টোরেজ নিতে শুরু করে। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ২১ ফোনে একটি দুই মিনিটের স্ক্রিন রেকর্ডের জন্য ১০০ এমবি স্পেস প্রয়োজন হয়। যারা নিয়মিত স্ক্রিন রেকর্ড করেন তাঁদের জন্য সমস্যার কারণ হতে পারে এটা।

আপনার স্মার্টফোন ডিসপ্লের রেজোলিউশনের উপরে নির্ভর করে রেকর্ডিংয়ের রেজোলিউশন। ফাইল সাইজ ছোট করার জন্য ভিডিও কোডেক, এফপিএস, ভিডিও রেজোলিউশন সম্পর্কে জানা প্রয়োজন।

ভিডিও রেজোলিউশন কমালে ফাইল সাইজ ছোট হবে।

এফপিএস কমালেও ছোট হবে ফাইল সাইজ।

এএসি, এমপিথ্রিয়ের মতো অডিও কোডেক ব্যবহার করলে কমবে ফাইল সাইজ।

এই সব টেকনিক্যাল নাম শুনে ঘাবড়ে যাবেন না। বিভিন্ন কোম্পানির ফোনে কীভাবে স্ক্রিন রেকর্ডের ফাইল সাইজ ছোট করবেন দেখে নিন।

ওয়ানপ্লাস

কুইক টগল প্যানেল ওপেন করুন। এখানে স্ক্রিন রেকর্ডিং বাটনে লং প্রেস করুন। এখানে রেজোলিউশন ও এফপিএস কমিয়ে দিন।

স্যামসাং

কুইক টগল প্যানেল ওপেন করুন। এখানে স্ক্রিন রেকর্ডিং বাটনে লং প্রেস করুন। এখানে রেজোলিউশন ও এফপিএস কমিয়ে দিন।

রিয়েলমি/ওপ্পো

সিস্টেম ওপেন করে সিস্টেম অ্যাপস সিলেক্ট করুন। এবার স্ক্রিন রেকর্ডিং সিলেক্ট করে ভিডিও রেজোলিউশন মিডিয়াম অথবা লো করে দিন।

শাওমি

টুলস ফোল্ডার ওপেন করুন। এবার সিলেক্ট করুন স্ক্রিন রেকর্ডার। ডান দিকে উপরে গিয়ার আইকন সিলেক্ট করুন। ভিডিও কোয়ালিটি রেজোলিউশন সিলেক্ট করুন।

আইফোন

আইফোনেও বিল্ট ইন স্ক্রিন রেকর্ডার থাকে। যদিও আইফোনে স্ক্রিন রেকর্ডিং সেটিংসে কোয়ালিটি সেট করা যায় না। অ্যাপ স্টোর থেকে থার্ড পার্টি অ্যাপ ডাউনলোড করে এই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলতে পারে। এই জন্য রেকর্ডার প্লাসের মতো অ্যাপ ডাউনলোড করে রেজোলিউশন সেট করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *