এ ভাবে মেরেধরে আমাদের দমানো যাবে না, জামিন পেয়ে হুঙ্কার তৃণমূল নেত্রী Saayoni Ghosh!

ত্রিপুরায় জামিন পেয়ে হুঙ্কার তৃণমূল নেত্রী সায়নী ঘোষের! আগরতলার পশ্চিম ত্রিপুরা জেলা আদালতে পেশ করা হলে সেখানে তাঁর জামিনের জন্য আবেদন করেছিলেন তৃণমূলের আইনজীবীরা। শেষ পর্যন্ত তাঁর জামিন মঞ্জুর হয়েছে। 

সায়নীর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা-সহ একাধিক অভিযোগ করেছিল বিজেপি। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাঁকে জেরা করতে হোটেলে হানা দেয় পুলিশ। পরে তাঁকে থানায় ডেকে পাঠানো হয়। সেখানে দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পর সায়নীকে গ্রেফতার করে পূর্ব আগরতলা মহিলা থানার পুলিশ। 

আদালতে পেশ করা হলে দু-পক্ষের সওয়াল জবাবের পর ২০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পান সায়নী ঘোষ। তবে তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে তাঁকে। জামিন পাওয়ার পর সায়নী ঘোষ জানিয়েছেন, “ত্রিপুরায় অপশাসন চলছে। মানুষ দেখছে, মানুষ বিচার করবে। পুলিশ, সিআরপিএফ দিয়ে টার্গেট করা হচ্ছে। আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ যে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, তা আদালতে প্রমাণিত। লড়াই চলবে। এ ভাবে মেরেধরে আমাদের দমানো যাবে না।’’ বিপ্লব দেবের সরকারের বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। 

কবির শব্দবন্ধ তুলে যুব তৃণমূল সভানেত্রী সায়নী ঘোষ টুইটার ও ফেসবুকে লিখলেন, ‘হাজার বর্ক গিরে লাখ আঁধিয়া উঠে, ওহ ফুল খিল কে রহেঙ্গে জো খিলনে ওয়ালে হ্যায়!’ বাংলা অনুবাদে, ‘হাজার বজ্রপাত, লক্ষ আঁধির ঝাপটা সয়েছি। যে ফুল ফোটার অপেক্ষায়, তা অবশ্যই ফুটবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *