West Bengal Industry : মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই কাজ! মন্ত্রিসভার অনুমোদন পেল ইথানল ও ডেটা পলিসি…

#কলকাতা: গতকাল পানাগড় শিল্পতালুক থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee) দুটি পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছিলেন। প্রথমত ইথানল (Ethanol Policy) এর মত জৈব জ্বালানি তৈরি করার জন্য ইথানল পলিসি (Ethanol Policy) তৈরির কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata Banerjee)। পাশাপাশি ডেটা পলিসি (Data Policy) তৈরি করার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ঘোষণার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই বৃহস্পতিবার রাজ্য মন্ত্রিসভা এই দুটি পলিসিকে অনুমোদন দিল।

রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে এদিন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) জানান “নিয়োগকারীদের উৎসাহ আছে এই দুটি ক্ষেত্রে বিনিয়োগের জন্য। তার জন্য বিনিয়োগের সম্ভাবনা প্রচুর বাড়বে। আজ এই দুটি পলিসির (Ethanol Policy Data Policy) অনুমোদন দিল রাজ্য মন্ত্রিসভা। গাইড লাইন ঠিক করে দেওয়া হবে।”

বুধবার পানাগড় শিল্পতালুক থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন “ইথানল হল পরিবেশবান্ধব জ্বালানি। এটি তৈরি করতে ভাঙ্গা চাল প্রয়োজন হয়। এই জ্বালানি পেট্রোল-ডিজেলের বিকল্প হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে। শুধু তাই নয়, চাষিদের থেকে ভাঙ্গা চাল কিনে তা দিয়ে এই জৈব জ্বালানি ইথানল তৈরি করা হবে। বিনিয়োগ করা হবে দেড় হাজার কোটি টাকা।”

এদিন এই প্রসঙ্গে শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন “ইথানলের ব্যবহার কৃষকদের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ করবে।” পাশাপাশি ডেটা পলিসি সম্পর্কে এদিন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন ” রাজ্যে তথ্যপ্রযুক্তির সেন্টারে বহু অর্থ বিনিয়োগ হবে। যারা তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে আবেদন করতে চান করতে পারেন।” অন্যদিকে শিল্পমন্ত্রী এও জানিয়েছেন আগামী ১৫ই সেপ্টেম্বর রাজ্য সরকারের তৈরি করা ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রমোশন বোর্ডের প্রথম বৈঠক হবে। পাশাপাশি ফাউন্ড্রি শিল্পে ২০০০ কোটি টাকার বিনিয়োগের প্রস্তাব রয়েছে বলেও এদিন শিল্পমন্ত্রী জানান। এ প্রসঙ্গে শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন ” সারা ভারতবর্ষে ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্পে আশাব্যঞ্জক রাজ্য।”

অন্যদিকে এদিন রাজ্যের শিল্প সম্মেলন নিয়ে রাজ্যপালের ট্যুইট প্রসঙ্গে শিল্পমন্ত্রী বলেন “কেন্দ্রীয় সরকারকে জিজ্ঞাসা করুন কতটা শিল্প করেছে। বেকারত্বের হার চার দশকের মধ্যে সবথেকে উপরে। আমরা বেকারত্বের হার ৪০ শতাংশ কমিয়েছি। রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিলগ্নীকরণ হচ্ছে।” বিশ্বভারতী নিয়ে এদিন কড়া প্রতিক্রিয়া দেন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন “বিশ্বভারতীর ঘটনায় লজ্জায় মাথা হেট হয়ে যাচ্ছে। আলাপ-আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করা প্রয়োজন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *