শিক্ষক নিয়োগে ফের দুর্নীতির অভিযোগ West Bengal School Service Commission বিরুদ্ধে, রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ আদালতের

শিক্ষক নিয়োগে ফের দুর্নীতির অভিযোগ West Bengal School Service Commission বিরুদ্ধে, রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ আদালতের

নিয়োগ নিয়ে আরও একবার প্রশ্নের মুখে West Bengal School Service Commission। যে তালিকায় এসটি বা তফশিলি উপজাতি অন্তর্ভুক্ত চাকরি প্রার্থীদের নাম থাকার কথা, সেখানে অন্যান্যদেরও নাম রয়েছে বলে অভিযোগ। এই অভিযোগ জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তফশিলি উপজাতি অন্তর্ভুক্ত চাকরি প্রার্থীরা। আজ প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে ছিল এই মামলার শুনানি। 

অভিযোগ, ২০১৬-র আপার প্রাইমারিতে উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, সেখানে সিডিউল ট্রাইব (ST) তালিকায় মন্ডল, মাহাতো ইত্যাদি পদবীর পরীক্ষার্থীরাও জায়গা পেয়েছেন। ২০১৬ সালে উচ্চ প্রাথমিকের যে নিয়োগের পরীক্ষা হয়েছিল, সেই তালিকা থেকেই এই প্রশ্ন সামনে এসেছে।

মামলাকারীর বক্তব্য, সুপ্রিম কোর্টের নির্দিষ্ট গাইডলাইন আছে কারা এসসি তালিকার অন্তর্ভুক্ত সে বিষয়ে। এমন কি সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী, মাহাতোদের যাতে এসটি তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা যায় সে জন্য কেন্দ্রকে চিঠিও লেখেন। কিন্তু সেই আর্জি খারিজ হয়ে যায়। 

এই বিষয়ে মামলাকারীর আইনজীবী দেবজ্যোতি বসু বলেন, অন্তত ৭৫ জনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আছে। কুর্মি ও মাহাতো এরাই শুধু এসটি। অন্য ক্যাটাগরির পরীক্ষার্থীদের কেন জায়গা দেওয়া হয়েছে? রাজ্য জানিয়েছে তারা ইতিমধ্যেই অভিযোগ পেয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে। আগামী ২১ ডিসেম্বর সেই রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *