জল থই থই শহরে আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

বুধবারের রাতভর বৃষ্টিতে জলমগ্ন শহর কলকাতা। জলমগ্ন হয়ে পড়েছে রাজ্যের একাধিক জেলাও। বুধবার সারা রাত ধরে বৃষ্টির পরেও বৃহস্পতিবার আবহাওয়ার উন্নতির কোনও আশা নেই বলে জানা যাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে। আগামী ২৪ ঘণ্টার রাজ্যের বিভিন্ন অংশে কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বুধবার রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত টানা ভারী বৃষ্টির জেরে কলকাতার বিভিন্ন এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ে। জল জমে গিয়েছে রাস্তায়। জল জমেছে সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ, ঠনঠনিয়া, আমহার্স্ট স্ট্রিট, পার্ক সার্কাস, বেহালা, , ই ডি এফ হাসপাতাল আনোয়ার শাহ, ঢাকুরিয়া, আলিপুর বর্ধমান রোড, খিদির পুরে জল জমে রয়েছে। জলবন্দি সাদার্ন অ্যাভিনিউ, যাদবপুরের বিস্তীর্ণ এলাকা। তবে কলকাতা পুরসভার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, একাধিক লকগেট খুলে দেওয়া হয়েছে, ফলে দ্রুত জল নেমে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে।

রাত ভর বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন শহর কলকাতা , আলীপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে শহরের বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির পরিমান –

মানিকতলা: ৭৭ মিলিমিটার
বীরপাড়া : ৬৩ মিলিমিটার
ঠনঠনিয়া কালীবাড়ি: ৯৬ মিলিমিটার
বেলগাছিয়া: ৮২ মিলিমিটার
ধাপা: ১০২ মিলিমিটার
উল্টোডাঙ্গা : ৮৫ মিলিমিটার
পামারব্রিজ ১১৫ মিলিমিটার
বালিগঞ্জ :১৪৮ মিলিমিটার
চেতলা: ১৫০ মিলিমিটার
মমিনপুর: ১৭৯ মিলিমিটার
কালীঘাট: ১৬৮ মিলিমিটার
বেহালা:১১৭ মিলিমিটার
জিঞ্জিরা বাজার: ১৬৮ মিলিমিটার
কামার ডহরিতে: ১৪৭ মিলিমিটার
তপসিয়া : ১৫৩ মিলিমিটার
দত্ত বাগান : ৫৩ মিলিমিটার

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, আগামী ২৪ ঘণ্টার রাজ্যের বিভিন্ন অংশে কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার রাজ্যের বিভিন্ন অংশে কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার তাপমাত্রা থাকতে পারে সর্বোচ্চ ২৯ ডিগ্রি ও সর্বনিম্ন ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার রাজ্যে বৃষ্টি হয়েছে মোট ১৪৪.৫ মিলিমিটার। কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুরেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। হাওড়া-হুগলি, বাঁকুড়াতে বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ প্রবল বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়েই বৃষ্টি হওয়ায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনার অনেকাংশে জল জমে গিয়েছে। দ্বারকেশ্বর, শিলাবতী, কংসাবতী নদীর জলস্তর অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। জলমগ্ন কলকাতায় ফের ভারী বৃষ্টি শুরু হলে, জমা জলের পরিমাণ আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা পুরসভার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *